Home / Assignment / Class 6 BGS Assignment Answer 2nd Week

Class 6 BGS Assignment Answer 2nd Week

Class 6 BGS Assignment Answer 2nd Week is available below. Class Six Assignment Question and Solution Bangladesh and Global Studies (BGS) Subject. If You Looking For 2nd Week Class 6 Assignment Solution Bangladesh and Global Studies (BGS) Subject. 2nd Week BGS Assignment Question Publish Directorate of Secondary and Higher Education (DSHE) Official Website www.dshe.gov.bd. See Full Solution Class 6 Bangladesh and Global Studies (BGS) Assignment Answer 2nd Week. We are very happy to declare that the class 6 2nd assignment solution for Bangladesh and Global Studies (BGS) subject has been published on our website. DSHE Assignment 2021 Download & Details.

 

 

2nd Week BGS Assignment Answer for Class 6

2nd Week Assignment Important Information

  • Assignment Type: School / College Assignment
  • 2nd Week Assignment Publish Date: 25 March 2021
  • Assignment Class: Six
  • Subject: Bangladesh and Global Studies (BGS)
  • Board: All Education Board

NB: সকল শ্রেনীর প্রশ্ন সমাধান পোস্টের একটু নিচের দিকে পাবেন। কিছুখন পর পর ভিজিট করে আপনার সমাধান নিয়ে নিন। 

2nd Week Assignment Question Notice 2021 PDF

School 2nd Week Assignment Question 2021 PDF

2nd Week Assignment Question Notice 2021 image

School 2nd Week Assignment Notice

2nd Week Assignment Answer for Class 6

Class 6 Assignment Bangladesh & Global Studies BGS 2nd Week

Class 6 Assignment BGS 2nd Week 

Class 6 Assignment Bangladesh and Global Studies (BGS) Question and Solution 2nd Week 2021

Question: 

১৯৫২ থেকে ১৯৭১ পর্যন্ত সময়কালে মুক্তিযুদ্ধের আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধুর অবদানের উপর একটি সচিত্র পোস্টার তৈরি কর।

Solution: 

১৯৫২ থেকে ১৯৭১ পর্যন্ত সময়কালে মুক্তিযুদ্ধের আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধুর অবদানের সচিত্র পোস্টারঃ 

মুজিবুর রহমান শুধু একটি নাম নয়। বাংলার বন্ধু, বঙ্গবন্ধু আজীবন বাঙালি জাতির মুক্তি নিয়ে বাংলার মানুষের অধিকার, আত্মসম্মান, সুখশান্তি, সমৃদ্ধি, শিক্ষা সংস্কৃতি, ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে ভেবেছেন এবং এই লক্ষ্যে লড়াই, সংগ্রাম আন্দোলন জেল, জুলুম, কারা বরণ করেছেন মাসের পর মাস। ভাষা আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে সৃজিত হয়েছিল বাংলাদেশের অভ্যুদয়। ভাষা আন্দোলনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান ছিল অবিস্মরণীয়। তাঁর আত্মোপলব্ধির জায়গা থেকে এ কথা মনেপ্রাণে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করতেন যে, মাতৃভাষা মানুষের মুখের লালার মতো।  বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ ভাষা আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়ার কারণে রাজপথ থেকে গ্রেফতার হন। কারাগারে থেকেই তিনি ভাষা আন্দোলনের প্রতি সমর্থন দিয়ে যান। ১৯৫২ সালে ঢাকায় প্রাদেশিক পরিষদের অধিবেশনে ছাত্ররা গণপরিষদ ঘেরাও করে রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে স্মারকলিপি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। দিনটি ছিল একুশে ফেব্রুয়ারি। পূর্ব পাকিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী নুরুল আমিনের নেতৃত্বে মুসলিম লীগ সরকার ছাত্রদের বাধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সরকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে। ২০ শে ফেব্রুয়ারি রাতে সভা করে ছাত্ররা ১৪৪ ধারা ভেঙে মিছিল বের করার সিদ্ধান্ত নেয়। ২২ শে ফেব্রুয়ারি ছাত্র জনতার মিছিলে শফিউর রহমান সহ ৯ বছরের কিশোর অলিউল্লাহও পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছিল। এছাড়া নাম না জানা আরো অনেকে ২১ শে ও ২২ শে ফেব্রুয়ারীতে নিহত হয়েছিল। তারা সবাই ভাষা শহীদ।

ভাষা আন্দোলন | ক্লাস রুম | দেশ রূপান্তর

বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের রোডম্যাপ মূলত রচিত হয়েছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছয় দফা থেকেই। এটি ছিল রাজনীতিতে বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শী একটি ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত। যেটাকে বাঙালির মুক্তির সনদ বা ম্যাগনাকার্টা বলে অভিহিত করা হয়। বাঙালি জাতীয়তাবাদের উত্থানের ইতিহাসে ছয় দফার ভূমিকা বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। ১৯৬৬ সালের ছয় দফার ভিত্তিতে ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান ব্যাপকতা পায়। আর ৭০ সাল পর্যন্ত ছয় দফার ভিত্তিতেই স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে আন্দোলন পরিচালিত হয়। মূলত ছয় দফা আন্দোলনকে কেন্দ্র করেই ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করতেন, ছয় দফার বাস্তবায়ন ছাড়া বাঙালির জাতির মুক্তি সম্ভব নয়। তাই এই অকুতোভয় বীর দ্বিধাহীন চিত্তে বলতে পেরেছিলেন, ‘সরাসরি রাজপথে যদি আমাকে একা চলতে হয়, চলব। কেননা ইতিহাস প্রমাণ করবে বাঙালির মুক্তির জন্য এটাই সঠিক পথ।’ ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি বিরোধী রাজনৈতিক দল নিয়ে লাহোরে এক জাতীয় সম্মেলন ছয় দফা আহ্বান করা হয়। এখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পূর্বপাকিস্তানে বাঙালির সব ধরনের অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য ছয় দফা কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ছয় দফা ছিল মূলত স্বায়ত্তশাসনের দাবি। অর্থাৎ পাকিস্তানের সাথে যুক্ত থেকেই পূর্ব পাকিস্তানের শাসন এর দায়িত্ব ও ক্ষমতা থাকবে পূর্ব পাকিস্তানের মানুষের হাতে। এই ছয় দফাকে বাঙালির জাতির মুক্তির সনদ বলা হয়।

৬ দফা ও বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শী ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত

বাঙালির জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে সামরিক বাহিনীর কিছু সংখ্যক সদস্য রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় লেঃ কমান্ডার মোয়াজ্জেমের নেতৃত্বে পূর্ব বাংলাকে বিচ্ছিন্ন করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের এক প্রচেষ্টা গ্রহণ করে। সংগঠনের কোন এক সদস্যের অসতর্কতার ফলে পাকিস্তান সরকারের কাছে এই পরিকল্পনার কথা ফাঁস হয়ে পড়ে। পূর্ব পাকিস্তানকে বিচ্ছিন্ন করার ষড়যন্ত্রে ১৯৬৭ সালের ডিসেম্বর মাসে পাকিস্তান সরকার সামরিক বেসামরিক ২৮ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। ১৯শে জুন ‘৬৮ পাকিস্তান সরকার শেখ মুজিবর রহমানসহ ৩৫ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে এক রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা দায়ের করে। এই মামলা ‘আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা’ নামে পরিচিত।

১৯শে জুন ১৯৬৮, ঢাকা সেনানিবাসে এই মামলার বিচার শুরু হয়। বিচার কার্য চলার সময় থেকে শ্লোগান ওঠে- ‘জেলের তালা ভাঙব- শেখ মুজিবকে আনব।’ এই গণ-আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় বলা যায়, এই সময় সমস্ত দেশব্যাপী সরকার বিরোধী আন্দোলন পূর্ণতা লাভ করে।

 

অনার্স শিক্ষাথীদের জন্য অনলাইনে পড়াশোনা সারাক্ষণ: আগরতলা মামলার কারণ ও ফলাফল বর্ণনা কর

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসে ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাইলফলক। সামরিক শাসন এবং পাকিস্তানী সামরিক জান্তার গণতন্ত্র বিরোধী অপশাসনের বিরুদ্ধে দীর্ঘ আন্দোলনের পর আসে ওই নির্বাচন। এই নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ প্রাদেশিক আইনসভায় নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে। জাতীয় পরিষদের ১৬৯টি আসনের মধ্যে ১৬৭টিতে এবং প্রাদেশিক পরিষদের ৩০০টি আসনের মধ্যে ২৮৮টি আসনে জয় লাভ করে আওয়ামী লীগ। কিন্তু শাসক গোষ্ঠী ক্ষমতা বুঝে দেব দেব করে দিতেছিল না। সেই প্রেক্ষিতেই বঙ্গবন্ধু অসহযোগ আন্দোলন শুরু করেছিলেন।

পাকিস্তান টেকা না টেকার গণভোট | 860627 | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

আমাদের জাতীয় ইতিহাসের শ্রেষ্ঠতম অধ্যায় হলো একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ। এই মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে জন্মলাভ করে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।  ২৫ মার্চ পাকিস্তান সেনাবাহিনী পূর্ব পাকিস্তানের বড় শহরগুলোতে গণহত্যা শুরু করে। তাদের পূর্বপরিকল্পিত এই গণহত্যাটি ”অপারেশন সার্চলাইট” নামে পরিচিত। বঙ্গবন্ধু ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। এর পরেই তিনি গ্রেফতার হন।  ১০ই এপ্রিল ৭১ নির্বাচিত সাংসদগণ আগরতলায় একত্রিত হয়ে এক সর্বসস্মত সিদ্ধান্তে সরকার গঠন করেন। এই সরকার স্বাধীন সার্বভৌম ”গণ-প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার”। ১৭ই এপ্রিল ৭১ মেহেরপুর মহকুমার ভবেরপাড়া গ্রামে বৈদ্যনাথ তলায় ”গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার” আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করেন। শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ। দেশের সকল বাহিনী ও সাধারণ জনগণের গভীর মনোবলে দীর্ঘ ৯ মাসের যুদ্ধে আমরা জয়লাভ করি। জয় হয় বাংলার শোষিত মানুষের, জয় হয় বঙ্গবন্ধুর।

আনোয়ার হোসেনের মুক্তিযুদ্ধের ছবি - ছবির খবর

Related search:

2nd week assignment 2021 class 6 answer, bgs assignment class 6 answers, class 6 assignment 2nd week, class six Bangladesh and global studies assignment

Contact: 

Please Follow Our Facebook Page

Inform to: shahure.com

Email: shahure.com@gmail.com

Contact: 01320652739

Mirpur, Dhaka, Bangladesh 

About Ambia Akter Sadia

hey! My Name is Ambia Akter. My Nickname Sadia. I am very simple and general. 3+ years experience- White Hat SEO (On-page & Off-page optimization), SMM- Social Media Marketing, Website Design & Development, WordPress Design, Customization, and Development. I am working as a blogger and Content Writer for the last 3 Years. I am very happy with my profession. Doing Something new is my passion. I always love traveling. I hope you are enjoying this article. Thanks for visiting this website.

Check Also

Class 6 English Assignment

Class 6 English Assignment Answer 2nd Week

Class 6 English Assignment Answer 2nd Week is available below. School Class Six 2nd Week …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *